জীবনে কোটি টাকার মালিক হতে চাইলে যে চার ব্যবসার কোন বিকল্প নেই

বেকারত্ব এ দেশ অনেক এগিয়ে । হু হু করে বাড়ছে যেমন করোনা ঠিক তেমনি বাড়ছে বেকারত্ব ।আবার চলতি সমাজে একটি প্রথা প্রচলিত আছে যে ছেলেদের কাজ করতেই হবে । হতেই হবে প্রতিস্থিত। তাই পড়াশোনা শেষ করে বা পড়াশোনা শেষ না করে বেরিয়ে পড়ি কাজের সন্ধানে । পরিবারের দায়িত্ব যে নিতে হবে কাঁদে। ছেলে বলে কথা কিন্তু কাজ পাব কোথায়? দেশে যখন এত বেকারত্ব কে দেবে কাজ ?।

এদেশে প্রচুর মানুষ আছে যারা কাজ ফেলে মন দিয়েছে ব্যবসায় । এবং একসময় সফ-লতা পেয়েছে । অবশ্যই পেয়েছে । ব্যবসার কথা বললেই প্রথমে চিন্তা মাথায় আসে সেটা হল পুঁজি। মোটা অংকের একটা পুঁজি লাগবে তবে মিলবে ভালো ব্যবসা । কিন্তু এখন বর্তমান পরিস্থিতিতে অনেকে বলছে কম পুঁজিতে রয়েছে বহু ব্যবসা । মিলতে পারে সফলতা। দুই হাত ভরে করা যেতে পারে ইনকাম । কিন্তু কী সেই ব্যবসা ? আর কত টাকা লাগবে তাতে ?।

তথ্যপ্রযুক্তির :- এই তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবসা করে প্রতিবছর অনেক মানুষ যথেষ্ট ধন সম্পদের অধিকারী হয়েছেন । যেমন ধরুন ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ । তিনি মাত্র ৩০ বছর আগেই তথ্যপ্রযুক্তির এই ব্যবসা করে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন ঠিক তেমনই রয়েছেন বিলগ্রেটস

গৃহায়ন ব্যবস্থা:- এই ব্যবসায় আপনাকে সাফল্য পেতে গেলে কিছুটা পরিমাণ অর্থ ব্যয় করতে হবে । এবং থাকতে হবে তু-খোড় বুদ্ধি । অতীতকালে এই ব্যবসা যেমন রমরমা ছিল বর্তমানেও ঠিক তেমনি রয়েছে। বলাবাহুল্য তার থেকে আরও বেশি রয়েছে কাজেই এই ব্যবসা আপনি করতে পারেন ।

ফ্যাশন ও খুচরা পণ্য :– এই ব্যবসার মাধ্যমে অনেকে নিজের ভাগ্য পরিবর্তন করে থাকে । নিজস্ব ব্র্যান্ডের জামাকাপড় বা খুচরো পণ্য তৈরি করে তা পাইকারি বাজারে বিক্রি করে অনেকেই প্রচুর পরিমাণে লাভ-বান হয় । এবং প্রতি বছর অনেকেই কোটি কোটি টাকার ধ-ন সম্প-ত্তির মালিক হয়েছে ।