প্রেমের টানে বিদেশী তরুণী বাংলাদেশে

ভালোবাসার টানে সুদূর আয়াল্যান্ড থেকে বিয়ানীবাজারে ছুটে এলেন ডা.ইফা রায়ান। যথারীতি বাঙালির না’রীর বিয়ের চিরায়িত রূপ লাল বেনারসি শাড়ি পরে বসলেন বিয়ের পিঁড়িতে। বুধবার দুপুরে স্থানীয় বারইগ্রামবাজার রোডস্থ লাকি বেনকিউটিং হল-এ বিয়ানীবাজার উপজে’লার ঘুঙ্গাদিয়া গ্রামের বাসিন্দা তাজ উদ্দিনের পুত্র মাহবুবুর রহমানের স’ঙ্গে তার এ বিয়ে সম্পন্ন হয়।

বিয়ের অনুষ্ঠানে আয়ারল্যান্ড থেকে এসেছেন ইফা’র মা ক্যাটরিনা রায়ান, বাবা জন রায়ান ও ভাই অউন রায়ান।এছাড়া উপজে’লার বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা ওআত্মীয় স্বজন উপস্থিত ছিলেন।জানা যায়, ২০০৯ সালের দিকে স্টুযেন্ট ভিসা নিয়ে আয়ারল্যান্ডে পাড়ি জমান বিয়ানীবাজারের মাহবুবুর রহমান।

সেখানে আয়ারল্যান্ডের কিলকেনি থমাস টাউন এলাকার অধিবাসী জন রায়ানের মে’য়ে ডা. ইফা রায়ানের স’ঙ্গে পরিচয় ঘটে তার।পরিচয় থেকে প্রণয়। তারপর বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করতে ভালোবাসার পানসি করে ইফা স্ব-পরিবারে মাহবুবুর রহমানের স’ঙ্গে চলে আসেন বাংলাদেশে। মাহবুবুর রহমান সেখানে একটি ব্যাংকে কর্মরত এবং ইফা রায়ান ডাক্তারি পেশায় নিয়োজিত রয়েছেন।

আরও পড়ুনঃমডেল দামিনী ঘোষের সঙ্গে প্রেম করছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রাবন্তীপুত্র অভিমন্যু চট্টোপাধ্যায় (ঝিনুক)। তিনবছর গোপনে প্রেম করে সম্প্রতি প্রেমিকাসহ নিজের ইনস্টাগ্রামে ছবি শেয়ার করেছেন ঝিনুক। তা নিয়ে রীতিমতো হইচই পড়ে গিয়েছিল নেট দুনিয়ায়।মায়ের তৃতীয় বিয়ে ভাঙার খবরে যখন সংবাদমাধ্যম থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম তোলপাড় ঠিক তখনই নিজের প্রেম প্রকাশ্যে আনেন ঝিনুক। সম্প্রতি দামিনীকে নিয়ে রাজস্থান ঘুরতে গিয়েছিলেন ঝিনুক। সে ছবি প্রকাশ করেছেন নিজের ইনস্টাগ্রাম।

রোববার (১৭ জানুয়ারি) শেয়ার করা ছবিতে দেখা গেছে, দামিনীকে জড়িয়ে ধরে আছেন ঝিনুক। ছবিতে নীল ডেনিম ও স্কাই ব্লু টপে পাওয়া গিয়েছে দামিনীকে। কালো জিনস ও লেদার জ্যাকেট পড়েছিলেন ঝিনুক। ক্যাপশনে শ্রাবন্তীপুত্র লিখেছেন, ‘আমার রাজত্বের রানি’।

ছবিতে দামিনী লাভ রিয়েক্ট দিয়ে মন্তব্যের ঘরে লিখেছেন, ‘জান।’ এতেই চোখ আটকে গেছে নেটিজেনদের। ইতিবাচক এবং নেতিবাচক মন্তব্য লক্ষ্য করা গেছে ছবির কমেন্টস ঘরে। কেউ কেউ মনে করছেন, জমে উঠেছে শ্রাবন্তীপুত্রের প্রেম। এ জুটিকে গর্জিয়াস লাগছে। এমন মন্তব্যও করেছেন নেটিজেনদের অনেকে।