প্রেম থেকে বিয়ে, মা হওয়ার খবর সামনে আসার পর অবশেষে ‘গোপন কথা’ ফাঁস পরীমণির।

সকলকে চমকে দিয়ে অভিনেত্রী পরীমণি ঘোষণা করেছিলেন তাঁর জীবনে আসছে নতুন অতিথি। এমনকী, মাতৃত্বের খবর পাওয়ার পর শিল্পী সমিতির নির্বাচন থেকেও নিজেকে সরিয়ে রাখছেন এই অভিনেত্রী,

বাংলাদেশের সংবাদ মাধ্যমের কাছে তা স্পষ্ট করেছে নায়িকা। তিনি বলেন, ‘আমাকে সম্পূর্ণ বিশ্রাম নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। স’ন্তান জন্মের আগে আমি কোনও ঝুঁ’কি নিতে চাই না। নির্বাচনে একটা নির্দিষ্ট সময় দিতে হয়।

কিন্তু, আমার পক্ষে এখনই সেই সময় দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। তাই নির্বাচন থেকে সরিয়ে রাখছি নিজেকে। এছাড়াও চিকিৎসার জন্য আমাকে ভারতে যেতে হবে।’ অর্থাৎ মাতৃত্বকালীন অবস্থায় কোনও ঝুঁ’কি নিতে নারাজ তিনি, স্পষ্ট জানালেন পরী।

এদিকে, কবে শুরু হয়েছিল পরীমণি এবং রাজের ‘লভস্টোরি’? কবেই বা চার হাত এক হল তাঁদের? ‘গুনিন’ ছবির শ্যুটিংয়ের সময় তাঁদের প্রেমের গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল। কিন্তু, এই নিয়ে তাঁরা মুখ খোলেননি।

মা হওয়ার খবর সামনে আসার পর পরীমণি ‘প্রথম আলো’-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, ১৭ অক্টোবর বিয়ে করেছেন তাঁরা। প্রেম করার সাত দিনের

মাথায় তাঁরা বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন। রাজের আফতাব নগরের বাড়িতে তাঁদের বিয়ে হয়। রাজের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হতে শোনা যায় পরীমণিকে।

তিনি বলেন, ‘ওঁর সঙ্গে মিশতে গিয়ে দেখি আমরা দু’জনেই পা’গল। সারা জীবন আমাদের একসঙ্গে থাকা উচিত।’ এই মুহূর্তে অত্যন্ত ব্যস্ত পরীমণি। হাতে রয়েছে একাধিক ছবির কাজ। ব্যস্ততা প্রসঙ্গে তিনি বলেন,

‘দেড় বছর বিশ্রাম নিতে চাই। স’ন্তান সুস্থভাবে পৃথিবীর আলো দেখুক এটাই চাইব।’উল্লেখ্য, বিগত কয়েকদিনে একাধিক বিতর্কে জড়িয়েছেন পরীমণি। পুলিশ কর্তা সাকলায়েনের ঠোঁটে ঠোঁট রেখে কেক খাওয়ার একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছিল।

এই নিয়ে তোলপাড় চলেছিল দুই বাংলাতেই। কিন্তু, বরাবর কোনও বিতর্কের তোয়াক্কা না করে নিজের শর্তে বেঁচেছেন পরীমণি। মা হওয়ার খবর সামনে আসতেই নায়িকা জানান, অত্যন্ত খুশি। মনে হচ্ছে বিশাল পাখা হয়ে গেছে আমার।

প্রসঙ্গত, রাজ সম্প্রতি জানিয়েছেন, আপাতত তিনি কয়েকদিন পরীমণির সঙ্গে সময় কা’টাচ্ছেন। স্ত্রীকে সময় দেওয়ার জন্য লম্বা ছুটি নেওয়ার কথাও বলেন তিনি। বাংলাদেশের এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পরীমণির স্বামী বলেন, ‘ও একজন পাওয়ারফুল নারী।’