রোজ আয়না দেখে ফুঁপিয়ে ফুঁপিয়ে কাঁদি, বললেন সৃজিত

প্রে’ম-বিয়ে নিয়ে লুকোচু’রি করে ঢের সমালোচিত হয়েছেন সৃজিত-মিথিলা। বিয়ের পর কে’টে গেছে কয়েক মাস। কিন্তু এখনো নানা বিষয় নিয়ে ট্রলের শিকার হচ্ছেন এই দম্পতি।

বিয়ের পর প্রথম ভালোবাসা দিবস উদযাপন করলেন সৃজিত-মিথিলা। ভালোবাস দিবস উপলক্ষে মিথিলা তার টুইটার অ্যাকাউন্টে সৃজিতের সঙ্গে তোলা বেশ
কটি ছবি পোস্ট করেন।

এতে অনেকে প্রশংসা’সূচক মন্তব্য করেন। কিন্তু এক ব্যক্তি মন্তব্য করেন—‘তাহসান এর মতো হ্যান্ডসাম বয় ছেড়ে দিয়ে ওল্ড বয়কে ধরেছে’।আল আমিন নামে ওই ব্যক্তির মন্তব্যের জবাব রসিকতার

ছলেই দিয়েছেন সৃজিত মুখার্জি। এ নির্মাতা লিখেন, ‘আমি জানি। রোজ আয়না দেখে ফুঁপিয়ে ফুঁপিয়ে কাঁদি। বোট’ক্স আর প্লাস্টিক সার্জারি, দু’টোর জন্য টাকা জমাচ্ছি।’সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে রাফিয়া রশিদ মিথিলার সঙ্গে পরিচয় হয় সৃজিত মুখার্জির।

এরপর মনের লেনা-দেনা। গত ৬ ডিসেম্বর রেজিস্ট্রি বিয়ে করেন সৃজিত-মিথিলা। কলকাতায় সৃজিতের ফ্ল্যাটে তাদের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়।